গৌরীপুরবাসীর গ্রহণযোগ্য প্রার্থী হিরণ

প্রকাশিতঃ 2:37 pm | December 02, 2018

ময়মনসিংহের গৌরীপুরবাসীর মুখে মুখে এখন আহাম্মদ তায়েবুর রহমান হিরণ। স্থানীয় বিএনপির নেতাকর্মীদের কাছে তার গ্রহণযোগ্যতা অন্য নেতাদের চেয়ে অনেকটা আলাদা। দলের দু:সময়ে তার সাহসী ভূমিকার জন্য প্রসংশা করেছেন অনেকে। গৌরীপুরবাসীর স্বার্থরক্ষার এক দেশপ্রেমিক অধিনায়ক তিনি।

গৌরীপুরবাসীর এক সাহসী সন্তান ।তার নেতৃত্বের কারিশমা , দেশপ্রেম, সাহসিকতায় শীর্ষে তিনি । স্থানীয় বিএনপির উজ্বল নক্ষত্র তিনি ।‘গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে বিএনপি নেতা-কর্মীদের প্রেরণা। নির্ভীক প্রতিবাদী কণ্ঠস্বর। জেল-জুলুম, অত্যাচার-নির্যাতন উপেক্ষা করে দলকে চাঙ্গা করে রেখেছেন ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আহাম্মদ তায়েবুর রহমান হিরণ। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তাঁর এই ত্যাগের মূল্যায়ন দিতে গৌরীপুরে প্রস্তুত তাঁর সমর্থকরা।

ময়মনসিংহ-৩ (গৌরীপুর) আসন থেকে তিনি মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। অনেকেই বলছে, এ আসনটিতে এবার হিরণ আওয়ামী লীগসহ সকল প্রার্থীর জন্য বড় চ্যালেঞ্জ ।
স্থানীয় সূত্র জানায়, গৌরীপুরের সর্বববত্রই এখন রাজনৈতিক অঙ্গন সরগরম হয়ে উঠছে। বর্তমানে চায়ের দোকান থেকে শুরু করে সব মহলে নির্বাচনী আলাপ-আলোচনার ঝড়।

স্থানীয় রাজনৈতিক বিশ্লেষক ও বিএনপির অধিকাংশ নেতাকর্মীর দাবি, বর্তমান উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও ময়মনসিংহ উত্তর জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক আহাম্মদ তায়েবুর রহমান একজন শক্তিশালী ও নির্ভরযোগ্য প্রার্থী । তার সাথেই ভোটযুদ্ধ হবে । হিরন সমর্থকরা জানায়, হিরণ ছাত্রজীবন থেকেই ছাত্রদলের রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত।

মাত্র ২৭ বছর বয়সে মইলাকান্দা ইউনিয়ন বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত হন। বর্তমানে তিনি ময়মনসিংহ উত্তর জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক ও উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। ২০০৩ সালে তিনি বিপুল ভোটে মইলাকান্দা ইউপি চেয়ারম্যান এবং ২০১৪ সালে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থীকে প্রায় ১৮ হাজার ভোটের ব্যবধানে পরাজিত করে গৌরীপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিন হন।
হিরণ বলেন, ‘নেতাকর্মী, সমর্থক ও সাধারণ মানুষের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এমপি পদে মনোনয়ন জমা দিয়েছি। বিজয়ী হয়ে গৌরীপুরবাসীকে আসনটি উপহার দিতে প্রস্তত আছি। এ জন্য সবার সার্বিক সহযোগিতা, সমর্থন ও দোয়া চাই।’