টেস্টে দ্বিতীয় দিনেই কোণঠাসা ক্যারিবীয়রা

প্রকাশিতঃ 5:17 pm | December 01, 2018

মাথার উপর পাহাড়সমান রান। প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৫০৮। এত বড় বোঝা মাথায় নিয়ে যেন নিজেদের সহজাত ব্যাটিংটাই ভুলে গেল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। মিরপুর টেস্টে দ্বিতীয় দিনের শেষ সেশনে ব্যাটিং করতে নেমে রীতিমত কোণঠাসা হয়ে পড়েছে সফরকারিরা। ৫ উইকেটে ৭৫ রান নিয়ে দিন শেষ করেছে তারা। এখনও ফলোঅন এড়াতে দরকার ১৩৪ রান। আর বাংলাদেশের প্রথম ইনিংস থেকে ওয়েস্ট ইন্ডিজ পিছিয়ে আছে ৪৩৩ রানের বড় ব্যবধানে।

বাংলাদেশের স্পিন আক্রমণে ভীত ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রথম সারির পাঁচ ব্যাটসম্যানই হয়েছেন বোল্ড। ইনিংসের প্রথম ওভারেই বল হাতে তুলে নেন দলীয় অধিনায়ক সাকিব। ওই ওভারেই উইকেট তার। ওয়েস্ট ইন্ডিজ অধিনায়ক ক্রেইগ ব্রেথওয়েটকে শূন্য রানে ফেরান বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। এরপর ষষ্ঠ ওভারে এসে কাইরন পাওয়েলকে ৪ রানে সাজঘরের পথ দেখান মেহেদী হাসান মিরাজ।

৭ রান করে সাকিবের দ্বিতীয় শিকার সুনিল এমব্রিস। আর শূন্য রানেই দলের চতুর্থ ব্যাটসম্যান হিসেবে বোল্ড হন রস্টন চেজ। তার উইকেটটিও নেন মিরাজ। থিতু হতে চেয়েছিলেন শাই হোপ। তাকেও ১০ রানের বেশি এগোতে দেননি মিরাজ। হোপও হন বোল্ড। ২৯ রানের মধ্যে ৫ উইকেট হারিয়ে তখন চোখে রীতিমত ‘সর্ষে ফুল’ দেখছিল ক্যারিবীয়রা।

সেখান থেকে দলকে উদ্ধারের চেষ্টায় লড়ে যাচ্ছেন সিমরন হেটমেয়ার আর শেন ডোরিচ। ষষ্ঠ উইকেটে তারা অবিচ্ছিন্ন আছেন ৪৬ রানে। হেটমেয়ার ৩২ আর ডোরিচ ১৭ রান নিয়ে তৃতীয় দিনের খেলা শুরু করবেন।

এর আগে ব্যাটসম্যানদের দৃঢ়তায় প্রথম ইনিংসে ১৫৪ ওভার ব্যাটিং করে ৫০৮ রানের পুঁজি দাঁড় করায় বাংলাদেশ। মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ একাই করেন ১৩৬ রান। ২৪২ বলের ইনিংসটিতে তিনি হাঁকান ১০টি বাউন্ডারি।

ষষ্ঠ উইকেটে মাহমুদউল্লাহ আর সাকিবের ১১১ রানের বড় জুটিটিই মূলতঃ বড় সংগ্রহের ভিত গড়ে দিয়েছিল বাংলাদেশের। সাকিব সেঞ্চুরির আক্ষেপ নিয়েই সাজঘরে ফিরেছেন। ১৩৯ বলে ৬ বাউন্ডারিতে ৮০ রান করে কেমার রোচের শিকার হন টাইগার অধিনায়ক।

এরপর লিটন দাসকে নিয়ে ৯২ রানের আরেকটি জুটি মাহমুদউল্লাহর। লিটন হাফসেঞ্চুরি পূরণ করার পর অবশ্য বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি। ব্রেথওয়েটকে রিভার্স সুইপ করতে গিয়ে ৫৪ রানে উইকেট বিলিয়ে দিয়ে আসেন তিনি।

মেহেদী হাসান মিরাজ করেন ১৮ রান। নবম উইকেটে তাইজুল-মাহমুদউল্লাহর আবারও ৫৬ রানের জুটি। ২৬ রান করে তাইজুল ব্রেথওয়েটের শিকার হন। শেষ উইকেটে নাঈম হাসানকে নিয়ে ৩৬ রানের আরেকটি জুটিতে বাংলাদেশের সংগ্রহ পাঁচশ পার করে দেন মাহমুদউল্লাহ। নাঈম অপরাজিত ছিলেন ১২ রানে।

ক্যারিবীয়দের পক্ষে ২টি করে উইকেট নিয়েছেন কেমার রোচ, দেবেন্দ্র বিশু, জোমেল ওয়ারিকেন আর ক্রেইগ ব্রেথওয়েট।