রাতে বিগ ম্যাচে মাঠে নামছে ব্রাজিল

প্রকাশিতঃ 11:41 am | June 27, 2018

ক্রীড়া প্রতিবেদক:

রাশিয়া বিশ্বকাপের শেষ ষোলতে যেতে আজ ব্রাজিলের সামনে সার্বিয়া পরীক্ষা। আজ সার্বিয়ার বিপক্ষে জয় পেলে বা ড্র করলেই দ্বিতীয় পর্বে যেতে পারবে পাঁচ বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। আর হারলে আজই শেষ হয়ে যাবে বিশ্বসেরাদের এবারের আসর। যার কারণে এই ম্যাচটি অনেক গুরুত্বপূর্ণ নেইমারদের জন্য।রাশিয়ার মস্কোতে ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে বাংলাদেশ সময় রাত ১২ টায়।

বিশ্বকাপের চলতি আসরে ফেভারিটের তকমা নিয়ে আসা ব্রাজিল এখনো নিজেদের নামের ‍সুবিচার করতে পারেনি। নিজেদের প্রথম ম্যাচে সুইজারল্যান্ডের সঙ্গে ১-১ ড্রয়ের পর কোস্টারিকার বিরুদ্ধে গোল দুটি পায় ইনজুরি সময়ে। তারপরেও শেষ ম্যাচের জয়টিই আজ মনোবল যোগাবে নেইমারদের। তারকায় পরিপূর্ণ দলটির আছে নেইমার ছাড়াও ফিলিপ কোতিনহো এবং গ্যাব্রিয়েল জেসুসের মতো ফুটবলার। তাই সবমিলিয়ে এই ম্যাচে সার্বিয়া থেকে অনেকটাই এগিয়ে ব্রাজিল। সার্বিয়াকে হারাতে পারলেই ই গ্রুপের সেরা হয়েই নকআউটে খেলবে পাঁচ বারের বিশ্বসেরা চ্যাম্পিয়নরা।

ইতোমধ্যে ‘ই’ গ্রুপ থেকে বিদায় নিয়েছে কোস্টারিকা। দ্বিতীয় রাউন্ডে ওঠার লড়াইয়ে টিকে আছে ব্রাজিল, সুইজারল্যান্ড ও সার্বিয়া। চার পয়েন্ট নিয়ে ব্রাজিল এখন পয়েন্ট টেবিলে শীর্ষে রয়েছে। চার পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে সুইজারল্যান্ড। তিন পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে সার্বিয়া।

আজ কোস্টারিকার বিপক্ষে দিনের অপর ম্যাচে মাঠে নামবে সুইজারল্যান্ড। সুইজারল্যান্ড যদি কোস্টারিকাকে হারায় আর সার্বিয়াকে ব্রাজিল হারায় তাহলে দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠবে ব্রাজিল ও সুইজারল্যান্ড। আবার সার্বিয়ার কাছে যদি ব্রাজিল হেরে যায় আর কোস্টারিকার বিপক্ষে সুইজারল্যান্ড জিতে যায় তাহলে দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠবে সুইজারল্যান্ড ও সার্বিয়া।

আবার এই দুইটি ম্যাচই যদি ড্র হয় তাহলে দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠবে ব্রাজিল ও সুইজারল্যান্ড। আর যদি কোস্টারিকা সুইজারল্যান্ডকে হারায় এবং ওদিক থেকে ব্রাজিলের বিপক্ষে সার্বিয়া জয় পায় তাহলে সার্বিয়া সরাসরি দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠবে। আর ব্রাজিল ও সুইজারল্যান্ডের মধ্যে যারা গোল ব্যবধানে এগিয়ে থাকবে তারা দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠবে।

বিশ্বকাপে সাবেক যুগশ্লোভিয়া (সার্বিয়া) সঙ্গে ব্রাজিলের অতীত রেকর্ড তেমন একটা চোখে পড়ার মত নয়। বিশ্বকাপের প্রথম আসরেই মুখোমুখি হয় দুই দল। ১৯৩০ সালের সেই দেখায় সার্বিয়ার কাছে পরাজিত হয় ব্রাজিল। এরপর ১৯৫০ সালে সার্বিয়ার সঙ্গে দ্বিতীয় বারের মত দেখা হয় ব্রাজিলের। দ্বিতীয় দেখায় অবশ্য ২-০ গোলের ব্যবধানে জয় পায় সেলেসাওরা। এরপরের দুই বারেই দুই দলের মধ্যেকার ম্যাচটি ড্র হয়। ব্রাজিল-সার্বিয়ার শেষ দেখা হয় ১০৭৪ সালে।

দুই দলের সম্ভাব্য একাদশ:

ব্রাজিল একাদশ- অ্যালিসন (গোলরক্ষক), ফ্যাগনার, সিলভা, মিরান্ডা, মার্সেলো; ক্যাসেমিরো, পাউলিনহো; নেইমার, কৌতিনহো, উইলিয়ান, জেসুস।

সার্বিয়া একাদশ : ভ্লাদিমির স্টোজকভিক, ব্রানিস্লাভ ইভানোভিক, নিকোলা মিলেনকোভিক, দুসকো টসিক, অ্যালেকজান্ডার কোলারভ, লুকা মিলিভোজেভিক, নেমাঞ্জা মেটিক, সার্গেই মিলিনকোভিক-সাভিক, দুজান তাদিক, আলেকজান্ডার মিত্রোভিক, অ্যাডেম এলজাজিক।