সএসসি ও এইচএসসিতে ১,২০০ জিপিএ-৫ প্রাপ্তদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে ইকরামূল হক টিটু ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশন গরীব ও মেধাবীদের উচ্চ শিক্ষার্থে বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজ প্রতিষ্ঠা করা হবে

প্রকাশিতঃ 6:45 pm | November 30, 2018

 


স্টাফ রিপোর্টার

‘মাত্র ৩৪ বছর বয়সে ঐতিহ্যবাহী ময়মনসিংহ পৌরসভার চেয়ারম্যান এবং পরে মেয়র নির্বাচিত হয়েছি, নাগরিকদের সহযোগিতা ও ভালোবাসা সঙ্গে নিয়েনিজের মেধা, শ্রম ও আন্তরিকতা দিয়ে নগরের সার্বিক উন্নয়নসহ পৌরসভাকে সাজাতে যথাসাধ্য চেষ্টা করেছি,একটি আধুনিক উন্নত নগরী গড়ে তোলার জন্য মাস্টারপ্ল্যাণ তৈরী করেছি।

সিটি কর্পোরেশনের প্রথম প্রশাসক হিসেবে দায়িত্ব পেয়েছি। আগামী দিনে ময়মনসিংহ সিটিকর্পোরেশনের মেয়র নির্বাচিত হতে পারলে গরীব ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের উচ্চ শিক্ষার সুযোগ সৃষ্টির লক্ষ্যে ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের উদ্দ্যোগে বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজ প্রতিষ্ঠা করা হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন সিটি কর্পোরেশনের প্রশাসক ইকরামূল হক টিটু। ’তিনি বলেন শতশত কোটি টাকার প্রকল্প বাস্তবায়িত হচ্ছে, যা বাস্তবায়িত হলে বিশ্বের একটি উন্নত ও মডেল শহরে রূপান্তরিত হবে ময়মনসিংহ। মাদক, দুর্নীতি, অন্যায়, জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে রুখে দাড়ানোর জন্য মেধাবী শিক্ষার্থীদের প্রতি আহবান জানিয়েছেন ইকরামূল হক টিটু।

ইকরামূল হক টিটু আরো বলেন, আজকের মেধাবীরাই মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় আগামী দিনে দেশরতœ মাদার অব হিউম্যানিটি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের উন্নত সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ে তুলবে। মেধাবী এই নতুন প্রজন্মকে আরো উৎসাহিত করতেই এই সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়েছে ।

২০১২ সাল থেকে ইকরামূল হক টিটুর নেতৃত্বে ময়মনসিংহ পৌরসভা এবং ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে এই প্রথম এবং টানা সাত বছর ধরে সর্বমোট প্রায় ৯ হাজার এসএসসি ও এইচএসসিতে জিপিএ-৫ প্রাপ্তদের এই সংবর্ধনা প্রদান করা হয়েছে। অনুভূতি ব্যক্ত করে শিক্ষার্থীরা বলেন জনপ্রিয় মেয়র টিটুর নেতৃত্বে তাদের জন্য জাঁকজমকপূর্ণ সংবর্ধনা আগাম ীদিনে সুশিক্ষায় শিক্ষিত ও দেশপ্রেমিক সুনাগরিক হওয়ার ব্যাপারে অনুপ্রেরণা যোগাবে।

শুক্রবার সকালে টাউন মাঠে বিশাল সুসজ্জিত মঞ্চ ও প্যান্ডেলে ২০১৮ সালে ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশন এলাকা থেকে এসএসসি ও এইচএসসিতে এক হাজার ২০০ জন জিপিএ-৫ প্রাপ্ত ছাত্রছাত্রীদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের প্রশাসক ইকরামূল হক টিটু এসব কথা বলেন। জিপিএ-৫ প্রাপ্তদের ডায়রী, ব্যাগ, মেডেল সনদপত্র, লটারীর কূপণ ও ফুলেল শুভেচ্ছায় সংবর্ধিত করা হয়।

অনুষ্ঠানের জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ.এইচ.এম মোস্তাফিজুর রহমান বলেন শিক্ষার্থীদের জীবনে সাফল্য বয়ে আনতে হলে সুনির্দিষ্ট লক্ষ্য ও স্বপ্ন থাকতে হবে এবং তা পূরণে যথাসাধ্য কঠোর পরিশ্রম করতে হবে।
অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন ময়মনসিংহ

সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন, সরকারী আনন্দ মোহন কলেজের অধ্যক্ষ নারায়ন চন্দ্র ভৌমিক, সরকারী মুমিনুন্নিসা কলেজের অধ্যক্ষ চিত্ত রঞ্জন চক্রবর্তী, সরকারী বিদ্যাময়ী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নাছিমা আক্তার, ময়মনসিংহ জিলা স্কুলের প্রধান শিক্ষক মোহছিনা খাতুন, শিক্ষার্থী অর্পা, আরশী, সারোয়ার জাহান প্রমূখ। শেষে এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়। অনুষ্ঠানে শিক্ষার্থী ছাড়াও অভিভাবক, শহরে বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।